ওজন বেশি হয়ে গেলে নিজের কাছেই অনেক অস্বাভাবিক লাগে আর সাথে তো আছেই নানা ধরনের রোগব্যাধি যা ওজন বাড়বার সাথে সাথে বাড়তে থাকে। ওজন বেড়ে গেলে আত্মবিশ্বাস হারাবেন না। শুধুমাত্র দৈনিক কিছু নিয়ম মেনে চললেই ওজন অনেকটা নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। খাবার খাওয়া অনেক কমিয়ে দিলেই ওজন কমে যায় না বরং শরীর দুর্বল হতে থাকে। খাবার খেতেই হবে দৈনন্দিন চাহিদা মেটাতে কিন্তু তা খেতে হবে সুশৃঙ্খল নিয়মের মধ্যে।

শর্করা জাতীয় খাবার শরীরের শক্তি জোগায় তাই প্রতিদিন সকাল একটি অথবা দুটি রুটি খাওয়া উচিৎ সাথে অল্প করে সবজি।  প্রোটিনের যোগান দেবার জন্য সকালেই একটি ডিম খেয়ে নিলে সারাদিন কাজের শক্তি পাওয়া যায়। দুপর এবং সকালের খাবারের মাঝে ক্ষুধা লেগে যায় অনেকেরই তাই সাথে বিস্কুট রাখা উচিৎ অথবা অল্প করে ডার্ক চকলেট। ডার্ক  চকলেটে বেশ এনার্জি থাকে যা আপনাকে অনেকক্ষণ কাজ করতে শক্তি জোগাবে। দুপুরে যাই খান না কেন সেই মেন্যুতে ভাত অর্ধেক নিবেন আর বাকি অর্ধেক নিবেন তরকারি অর্থাৎ দুটোই অর্ধেক অর্ধেক এবং অল্প পরিমানে। বিকেলে হাল্কা নাস্তা না করে নিলে রাত পর্জন্ত কি আর চলে তাই কিছু খেয়ে নিন যেমন ফল অথবা কোন সালাদ আইটেম। তেলে ভাজা খাবার যতটা পারেন এড়িয়ে চলুন। রাতে তারাতারি খাবার অভ্যাস করুন কারন ঘুমানোর আগেই রাতের খাবারের  হজম প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাওয়া উচিৎ। ঘুমানোর আগে এক গ্লাস কুসুম কুসুম গরম দুধ খেয়ে নিন। আর সারা দিনে অবশ্যই ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি খান।

প্রতিদিনের রুটিনেই হাল্কা ব্যায়ম রাখুন। সকালে উঠেই একটু দৌরে নিন আর পারলে হাত পা ছড়িয়ে নিন যা আপনার শরীর কে কাজের জন্য নতুন করে উদ্যমী করে তুলবে। অনেকেই আছেন যারা ওজন বেশি বারলেই অতিরিক্ত চিন্তায় পরে যায় আবার অনেকেই ডাক্তারের কাছেও চলে যান অথচ নিজের উপর বিশ্বাস রাখলে আর পরিমিত খাদ্য গ্রহণ করলেই ওজন নিয়ন্ত্রন সম্ভব।

Advertisements